তুমুল জনপ্রিয়তায় দীপ্ত টিভির ‘সুলতান সুলেমান’

Sultaaan20151111070642-400x208লিহান লিমা : মাত্র দুই মাসেই ঐতিহাসিক ঘটনার আদলে নির্মিত ধারাবাহিক ‘সুলতান সুলেমান’ দিয়ে জনপ্রিয়তার শীর্ষে উঠে এসেছে বিনোদনমূলক বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল ‘দীপ্ত টিভি’।
২০১৫ সালের ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহ টিআরপি রেটিং-এ দ্বিতীয় স্থান ও চলতি বছরের জানুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে দশর্ক জনপ্রিয়তার দিক থেকে প্রথমস্থান দখল করেছে দীপ্ত টিভি। টিআরপি রেটিং তথ্য অনুযায়ী চলতি বছরের প্রথম সপ্তাহে ২ জানুয়ারি থেকে ৮ জানুয়ারি পর্যন্ত রেটিংয়ের হিসেবে বিদেশি ধারাবাহিক ‘সুলতান সুলেমান’ চলার সময়ে দীপ্ত টিভি যেকোনো চ্যানেলের থেকে এগিয়ে ছিলো।
‘সুলতান সুলেমান’ বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় একটি ধারাবাহিক। এটি বিশ্বের ৬০টিরও বেশি দেশে এরইমধ্যে প্রচার হয়েছে। বাংলা ভাষায় ডাবিং করে সপ্তাহের ছয়দিন নির্দিষ্ট সময়ে সিরিজটি দীপ্ত টিভিতে প্রচার করায় দর্শকরা এটি উপভোগ করতে পারছেন সহজেই। ধারাবাহিকটির ডাবিং, কস্টিউম, ঐতিহাসিক কারুকার্য ইতোমধ্যেই নজর কেড়েছে দর্শকদের।
প্রায় ৭০০ বছর ধরে তুরস্কের অটোম্যান সাম্রাজ্যের রাজত্ব ছিল পৃথিবী জুড়ে। এই সাম্রাজ্যের স্বর্ণযুগ ছিল সুলতান সুলেমানের নেতৃত্বে ষোড়শ থেকে সপ্তদশ শতাব্দী পর্যন্ত। ক্ষমতার টানাপোড়েনে সেসময়ের অটোম্যান সাম্রাজ্যে ষড়যন্ত্র, গুপ্তহত্যা, ভাই হত্যা, সন্তান হত্যা এবং দাসপ্রথার অন্তরালে নানা কাহিনির জন্ম হয়। সেসব সেলুলয়েডের পাতায় নিয়ে র্নিমিত হয়েছে ‘সুলতান সুলেমান’ নামের মেগা-সিরিয়াল। জনপ্রিয় এই সিরিজে জীবন্ত হয়ে উঠেছে সুলতানকে প্রেমের জালে আবদ্ধ করে এক সাধারণ দাসীর সম্রাজ্ঞী হয়ে উঠার কাহিনি। এই দাসীর প্রতিদ্বন্দ্বী ছিল সুলেমানের প্রথম প্রেম মাহিদেভ্রান সুলতান, সুলেমানের মা আয়েশা হাফসা সুলতানা, সাম্রাজ্যের প্রধান উজির ইব্রাহিম পাশা।
যাত্রা শুরু থেকেই তিনটি মেগা সিরিয়াল সপ্তাহে ছয় দিন প্রচার করছে দীপ্ত। আশাপূর্ণা দেবীর উপন্যাস বালুচরী অনুসরণে তৈরি হয়েছে ‘অপরাজিতা’। অপর ধারাবাহিক ‘পালকী’, যেখানে এক সাধারন নারীর অসাধারণ হয়ে ওঠার গল্প রয়েছে। এবং আরেকটি ধারাবাহিক নাটক হলো ‘খুজেঁ ফিরি তাকে’। তাছাড়াও রয়েছে বাংলায় ডাব করা ছোটদের জন্য প্রিয় ‘বেনটেন আর দ্যা পাওয়ারপাফ গার্লস’ এবং রয়েছে ভিন্ন আঙ্গিকে দীপ্ত সংবাদ, সমকালীন ঘটনা নিয়ে টকশো ‘তক্কাতক্কি’।